শিক্ষা সফর সম্পন্ন

দাওয়াহ বিভাগের ফিমেল সেকশনের শিক্ষা সফর সম্পন্ন

দাওয়াহ বিভাগের ফিমেল সেকশনের শিক্ষা সফর সম্পন্ন

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের দাওয়াহ অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের দাওয়াহ ক্লাব ফিমেল সেকশনের উদ্যোগে একদিনব্যাপী চট্টগ্রাম - কক্সবাজার শিক্ষা সফর সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়েছে। 

৪০ জনের এই সফরে সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন দাওয়াহ বিভাগের প্রভাষিকা জনাবা জাকিয়া বিনতে আলম। উক্ত সফরে দাওয়াহ বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. শাকের আলম শওক, বর্তমান বিভাগীয় প্রধান ড. মুহাম্মদ আমিনুল হক, সেন্টার ফর ইউআরসির সহযোগী অধ্যাপক আতাউর রহমান নাদভী ও বিভাগীয় অ্যাডজাঙ্কট ফ্যাকাল্টি জনাবা উম্মে সায়মা তাজকিয়া অংশ গ্রহণ করেছিলেন। 

সকাল সাতটা তিরিশ মিনিটে বহদ্দার হাট বাস টার্মিনাল থেকে সফর শুরু হয়ে বেলা ১২ টায় কক্সবাজার গিয়ে পৌছে। মাঝে অবশ্য চা বিরতি ছিল। 

দুপুর বারোটা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত খাওয়া দাওয়া, রেস্ট ও নামাজের জন্য বরাদ্দ ছিল। এরপর কক্সবাজার আদর্শ মহিলা কামিল মাদরাসা ভিজিট হলো। সেখান থেকে সাড়ে তিনটায় সোজা লাবনী পয়েন্ট দিয়ে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে নেমে পড়লেন সবাই। সাগরের পানি দেখলে মরা মনটাও সজাগ হতে বাধ্য। সবাই উচ্ছলতার সাথে সাগরের ঢেউয়ের তালে আনন্দে মেতে উঠলেন। পানির সাথে মিতালীর ভাব চললো বিকেল পাচটা পর্যন্ত। এরপর সংক্ষিপ্ত কেনাকাটার জন্য সবাইকে সুযোগ দেয়া হলো। সাগর পাড়ের মার্কেট সবাই ঘুরে ঘুরে দেখলেন। কেউ কেউ কিনলেন নিজের পছন্দের জিনিষগুলো। কেউবা আবার শামুকে নিজের নাম খুদাই করে নিলেন।

সন্ধ্যা ঘনিয়ে এলো। এবার ফিশ ওয়ার্ল্ড দেখার পালা। সবাই গেলেন সেখানে। তিন তলা বিশিষ্ট ইয়া বিশাল অ্যাকুরিয়াম। যেখানে না গেলে শুধু ভাষা দিয়ে এর সৌন্দর্য্য প্রকাশ করা সম্ভব নয়। আল্লাহর কুদরত একটু করে হলেও অনুভব করা যায় সেখানে। শত রকম হরেক কালারের সুন্দর সুন্দর মাছ দিয়ে সাজানো ফিশ ওয়ার্ল্ড যারা না গেছেন তাদের জন্য আফসোস করতেই হবে। 

ফিশ ওয়ার্ল্ড দেখা শেষে সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওয়ানা। সারা সফরে খাবার দাবারের কোনো কমতি ছিল না। খাবারের তারিফ করতে গেলে আরেকটি রচনা লিখতে হবে। রাত সাড়ে বারোটায় চট্টগ্রামে সহি সালামতে ফিরে এলো দাওয়াহ ক্লাবের ফিমেল টিম। 

এত সুন্দর সফরের পেছনে ট্যুরে অংশগ্রহণকারী সকল সদস্যদের আন্তরিক ভুমিকা ছিল লক্ষনীয়। বিশেষ করে শিক্ষক/শিক্ষিকাদের অবদানকে কৃতজ্ঞতাভরে স্বীকার করতেই হবে। আল্লাহ সবাইকে উত্তম প্রতিদান দিন। 

Recent News